আমি শহীদদের সাথে মিলিত হতে চললাম

তায়েফের সাকিফ গোত্রের প্রধান ব্যক্তি উরওয়া ইবনে মাসউদ মদীনা এলেন এবং ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন মহানবীর কাছে।

আরবের তৎকালীন প্রথা অনুসারে উরওয়ার অনেক স্ত্রী ছিল।
চারজনের বেশী স্ত্রী মুসলমানদের জন্যে তখন নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
এই আদেশ জানার সাথে সাথে উরওয়া চারজন স্ত্রী রেখে অন্যদের তালাক দিয়ে দিলেন।
ইসলাম গ্রহণের কয়েকদিন পর উরওয়া মহানবীর কাছে হাজির হলেন এবং বললেন, ‘হে আল্লাহর রাসূল, আমার
স্বজাতীয়রা অজ্ঞতা ও অন্ধবিশ্বাসের অন্ধকারে ডুবে আছে।
আপনি অনুমতি দিলে আমি ফিরে গিয়ে তাদের কাছে সত্য দ্বীনের দাওয়াত দিতে পারি।’
তায়েফের বনি সাকিফ তখনও ইসলামের ভয়ানক বৈরী।
উরওয়ার আবেদন শুনে মহানবী (সা) বললেন, ‘উরওয়া, সে তো ভাল কথা।
কিন্তু আমার আশংকা হচ্ছে, তোমার স্বজাাতিরা তোমাকে হত্যা করবে।’
উরওয়া বললেন, ‘আমার স্বজনরা আমাকে খুবই ভালবাসে।’
উরওয়া তায়েফ ফিরলেন।
এখন উরওয়া আগের সেই উরওয়া নেই। সে এখন সত্যের সৈনিক, আল্লাহর সৈনিক।
সত্যের প্রতি মানুষকে আহবান করার কাজ তিনি শুরু করলেন নির্ভীকভাবে, নিরলসভাবে।
অতি অল্প সময়ের মধ্যে উরওয়ার স্বজন-স্বজাতীয়রা উরওয়ার জান-দুশমনে পরিণত হলো।
নিপীড়ন-নির্যাতন নেমে এল তাঁর উপর।
এমনকি নিজ বাড়ীতেও উরওয়ার পক্ষে একটু শান্তিতে-স্বস্তিতে থাকা কঠিন হয়ে দাঁড়াল।
একদিন উরওয়া তাঁর নিজ বাড়ির জানালায় আল্লাহর প্রশংসা কীর্তন করছিলেন।
লোকরা এসে তাঁকে চারদিকে থেকে ঘিরে দাঁড়াল। শুরু হলো উরওয়ার প্রতি তীর ও পাথর বর্ষণ।
তীর ও পাথরের আঘাতে ক্ষত-বিক্ষত হয়ে উঠল উরওয়ার দেহ।
কিন্তু উরওয়ার মুখ মুহূর্তের জন্যেও বন্ধ হয়নি আল্লাহর প্রশংসা কীর্তন থেকে।
একটা তীর এসে উরওয়ার বক্ষ ভেদ করল। উরওয়ার মুখে উচ্চকণ্ঠে ধ্বনিত হলো ‘আল্লাহু আকবর।’
তার মুখে আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি শেষ হবার সাথে সাথে উরওয়ার রক্তরঞ্জিত দেহ লুটিয়ে পড়ল মাটিতে।
তাঁর স্বজনরা মুমূর্ষূ উরুওয়ার কাছে এসে বিদ্রপ কণ্ঠে জিজ্ঞাসা করল, ‘এখন কেমন বুঝছ?’ উরওয়া উত্তেজিত কণ্ঠে বললেন, “সত্যের সেবায় ও দেশবাসীর কল্যাণে যে রক্ত উৎসর্গ করা হয়, তা শুভ এবং পুণ্যময়।
আল্লাহ আমাকে এই সৌভাগ্যের অধিকারী করেছেন, সত্যের সেবায় জীবন দিয়ে আমি শহীদদের সাথে মিলিত হবার জন্যে চললাম।”
উরওয়ার কণ্ঠে নীরব হলো।
সেই সাথে পরম আকাঙিক্ষত শহীদী মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন উরওয়া।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s